অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

পদ্মা ব্যাংকের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু

সত্যের সৈনিক অনলাইনঃ পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের যাত্রা শুরু করেছে। শনিবার(১৬ মার্চ) রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে লোগো উন্মোচনের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে নতুন এই ব্যাংকটি। ব্যাংকটির এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়েছে।

২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে প্রজ্ঞাপন পায় পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। ব্যাংকটির ৬৮ শতাংশ শেয়ারের অংশীদার চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক সোনালী, অগ্রণী, জনতা, রূপালী ও ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। দেশব্যাপী ৫৭টি শাখা ও আধুনিক ব্যাংকিং সুবিধা নিয়ে কাজ শুরু করেছে পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ উপদেষ্টা মসিউর রহমান। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম এবং পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত। সেই সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. এহসান খসরু।

লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, জনতা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুস সালাম আজাদ, অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামস-উল-ইসলাম, রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান প্রধান, ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী সানাউল হক উপস্থিত ছিলেন। সে সঙ্গে দেশের বিভিন্ন ব্যাংকের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সফল ও গুণীজনেরাও উপস্থিত ছিলেন।

ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. এহসান খসরু নিজ নিজ বক্তব্যে ব্যাংকের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনার কথা জানান। সে সঙ্গে চলতি ও আগামী মাসের নতুন ও আকর্ষণীয় প্রোডাক্ট লঞ্চিং সম্পর্কেও জানান তাঁরা।

দ্য ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের নাম পরিবর্তন করে নতুন নামকরণ করে ‘পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড’। গত ৩০ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করে এ কথা জানায়। প্রজ্ঞাপন সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে। ফলে এখন থেকে ব্যাংকটি আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড নামে কার্যক্রম পরিচালনা করবে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার থেকে তফসিলি ব্যাংকগুলোর তালিকায় দ্য ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড হিসেবে পরিবর্তন করা হয়েছে।

ঋণ কেলেঙ্কারিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে বিতর্কিত ফারমার্স ব্যাংকের নাম পরিবর্তন করে ‘পদ্মা ব্যাংক’ করার অনুমতি চেয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে আবেদন করেছিল বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ। এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাংকটি নাম পরিবর্তন করে ‘পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড’ করা হয়।

রাজনৈতিক বিবেচনায় ২০১৩ সালে অনুমোদন পাওয়া নতুন ৯ ব্যাংকের একটি ফারমার্স ব্যাংক। কিন্তু চার বছর না পেরোতেই চরম সংকটে পড়ে ব্যাংকটি। পরিস্থিতির চরম অবনতি হওয়ায় একপর্যায়ে পদ ছাড়তে বাধ্য হন ব্যাংকটির চেয়ারম্যান ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর। ব্যাংকটির এমডি এ কে এম শামীমকেও অপসারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

ব্যাংকটি বাঁচাতে মূলধন সহায়তা দিচ্ছে সরকারি চার ব্যাংক ও একটি বিনিয়োগ সংস্থা। এ ছাড়া শুরু থেকেই ব্যাংকটিতে এসব প্রতিষ্ঠানের ৫৫০ কোটি টাকা ধার রয়েছে। মূলধন সহায়তা দিয়ে রাষ্ট্রমালিকানাধীন সোনালী, অগ্রণী, জনতা, রূপালী ব্যাংক এবং ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) ব্যাংকটির পর্ষদের পরিচালক হয়েছে।

১৬ মার্চ ২০১৯/ সত্যের সৈনিক/ম.ম

Leave A Reply

Your email address will not be published.