অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

মারধরের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেত্রী বহিস্কার

মোঃ জহিরুল ইসলাম, ঢাকাঃ কোটা সংস্কারের দাবিতে যখন প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা আন্দোলন করছে, ঠিক এমন সময়ই কবি সুফিয়া কামাল হলে কয়েকজন সাধারণ ছাত্রীকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ উঠেছে কবি সুফিয়া হল শাখার সভাপতি ইফাত জাহান এশার বিরুদ্ধে। ইতোমধ্যে তাকে ছাত্রলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।বহিস্কার করা হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলের কয়েকজন ছাত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে আন্দোলন করলে তাদের মারধর করা হয়।

ছাত্রলীগের হল শাখার সভাপতি ইফাত জাহান এশার নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের মারধর করে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার জেরে এরই মধ্যে ইফাত জাহান এশাকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। একই সঙ্গে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান আনুষ্ঠানিকভাবে বহিষ্কার করা ও তদন্ত কমিটি গঠনের কথা জানান।

মঙ্গলবার দিবাগত (১১ এপ্রিল) রাত সোয়া ৩টায় প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী বিষয়টি নিশচিত করেন, ইফাত জাহান এশাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে।

আহতদের মধ্যে উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের মোরশেদা খানমের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। এছাড়া ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সারমিন সুলতানা কনা, গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের আফিফা আক্তার রিমু সহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদেরর সবাইকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

১১ এপ্রিল ২০১৮/সত্যের সৈনিক/সুলতান মাহমুদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.