অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

আইসিসি সংতর্ক করল বিশ্বকাপের ধারাভাষ্যকারদের

সত্যের সৈনিক অনলাইন:  এবারের বিশ্বকাপে বিষফোঁড়া হয়ে দেখা দিয়েছে আম্পায়ারিং বিতর্ক। ওয়েস্ট ইন্ডিজ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে দেখা গেছে একের পর এক বাজে আম্পায়ারিং। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উঠেছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। আম্পায়ারদের সমালোচনা করতে কার্পণ্য করেননি সেই ম্যাচে উপস্থিত ধারাভাষ্যকাররাও। কমেন্ট্রি বক্সে বসে আম্পায়ারদের অগ্রহণযোগ্য ভুলের সমালোচনা করেছেন তারা। আর তাতেই ধারাভাষ্যকারদের ওপর চটেছে আইসিসি। আইসিসি থেকে একটি সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে।

গত ৩০ মে ইংল্যান্ডে শুরু হয়েছে দ্বাদশ বিশ্বকাপ। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির মেগা এই ইভেন্টে কাজ করছেন প্যানেলে থাকা বিখ্যাত ধারাভাষ্যকাররা। তালিকায় বিখ্যাতদের সঙ্গে আছেন বাংলাদেশের আতহার আলী খান। বিশ্বকাপের গত আসরে ধারাভাষ্য দিয়েছিলেন মোট ৮ জন। এবার সেই তালিকা বর্ধিত করে ২৪ জনে উন্নীত করেছে আইসিসি। এই ধারাভাষ্যকারদের সতর্ক করে দিয়েছে আইসিসি।

ওই ম্যাচে উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রায় পাঁচটি ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের আম্পায়ার গ্যাফানি। কমেন্ট্রি বক্সে বসে ক্যারিবীয়ান গ্রেট ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার মাইকেল হোল্ডিং নিজের দেশের বিরুদ্ধে যাওয়া এমন সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি। ধারাভাষ্য রুমে বসে সঙ্গে সঙ্গে প্রতিবাদ করে হোল্ডিং বলেন, ‘আমি এটা না বলে থাকতে পারছি না যে এই ম্যাচে খুবই বাজে আম্পায়ারিং হয়েছে। ম্যাচের দায়িত্বে থাকা আম্পায়াররা নির্দয় এবং দুর্বল।’

মূলত হোল্ডিংয়ের এই কথার জের ধরে ধারাভাষ্যকারদের সতর্কবার্তা পাঠিয়েছে আইসিসি। তবে, অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে কোনো নোটিশ জারি করেনি আইসিসি। ব্যক্তিগতভাবে অনেককেই ই-মেইল পাঠিয়ে সতর্ক করেছে সংস্থাটি। মেইলে এটাও বলা হয়েছে আম্পায়ারের ব্যাপারে যেন ধারাভাষ্যকাররা নিরপেক্ষ থাকেন এবং তাদের ভালো কাজের প্রশংসা করেন।

৯ জুন ২০১৯ / সত্যের সৈনিক / এমএসআইএস

Leave A Reply

Your email address will not be published.