অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

ফেনী ফতেহপুর ওভারপাসের এক লেন যান চলাচলে খুলে দেয়া হয়েছে

জসিম উদ্দিন ফরায়েজী ফেনীঃ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী ফতেহপুরে নির্মাণাধীন রেলওয়ে ওভারপাসের এক লেন আজ খুলে দেয়া হয়েছে। (১৫ মে) মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে এটি খুলে দেয়া হলে গত ক’দিনে ফেনী বাইপাস অংশে সৃষ্ট ভয়াবহতম যানজটের অবসান হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ার-ইন চিফ মেজর জেনারেল সিদ্দিকুর রহমান সরকার, নির্মাণ প্রতিষ্ঠান আল আমিন কনস্ট্রাকশনের চেয়ারম্যান কবির আহমদ প্রমুখ। এর আগে মঙ্গলবার বিকেলের মধ্যে নির্মাণাধীন এ ওভারপাসের একাংশ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়।

সংশ্লিষ্ট সুত্র জানায়, ২০১২ সালে প্রকল্পটি নির্মাণ কাজ শুরু হয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘মেসার্স শিপো পিবিএল’ নির্ধারিত মেয়াদে কাজ শেষ না করে চাঁদাবাজির মুখে পড়ে পালিয়ে যায়। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ২০১৭ সালে কাজটি দেয়া হয় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশনকে। তাদের তত্ত্বাবধানে ‘আল-আমিন কনস্ট্রাকশন’ ৬০ কোটি ৫১ লাখ ১৮ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

মহাসড়কের ফেনী অংশের ফতেহপুরে রেলওয়ে ওভারপাস নির্মাণ কাজ চলায় সড়কটিতে যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে মহাভোগান্তিতে পড়েছেন গাড়ির চালক সহ যাতায়াতাকারীরা। নির্মাণ কাজের দীর্ঘসূত্রতায় মহাসড়কের এই অংশে নিত্য যানজট ছিল প্রতিদিনের ঘটনা। এবারের যানজট অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। মহাসড়কটির ১২০ কিলোমিটার দীর্ঘ ফোর লেন এই এলাকায় এসে আধাকিলোমিটার সিঙ্গেল লেনে পরিণত হওয়ায় এ যানজটের সৃষ্টি হয়। কিছুদিন আগেও মহাসড়কে চলাচলরত গাড়িগুলো ফতেহপুরের এই অংশের আগে ফেনী শহরের ওপর দিয়ে চলাচল করত। ওই সড়কে বড় বড় খানাখন্দের সৃষ্টি হওয়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। বর্তমানে সেটিতে মেরামত কাজ চলায় গাড়িগুলোতে মহাসড়ক দিয়েই চলাচল করতে হয়। এতে করে যানজট তীব্র আকার ধারণ করে। এমন পরিস্থিতিতে সোমবার পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেয় মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। একপর্যায়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ১৫ মে এর মধ্যে একটি লেন খুলে দেয়া এবং পুরো কাজ ২৫ দিনের মধ্যে শেষ করার আশ্বাস দিলে ধর্মঘট স্থগিত করা হয়।

জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায় জানান, গত ক’দিন টানা কাজ করে এক লেন প্রস্তুত করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সেটি খুলে দেয়া হয়েছে। এতে করে যানজটের ভোগান্তি অনেক কমে যাবে।

এদিকে গতকাল সোমবার যানজট অন্যদিনের তুলনায় কিছুটা কমে গেছে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়। তবে মহাসড়কের দাউদকান্দি, মেঘনা ও কাঁচপুর সেতু এলাকায় প্রায় ৩০ কিলোমিটার তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়।

ফেনী জেলা ট্রাফিক পুলিশের ইনচার্জ মীর গোলাম ফারুক জানান, গতকালই অনেকটা যানজট মুক্ত ছিল ফতেহপুর। আজ ওভারপাস খুলে দেয়ায় মহাসড়কের ফেনী বাইপাস অংশে যানজটের অনেকটা কমে গেছে।

১৬ মে ২০১৮/সত্যের সৈনিক/সুলতান মাহমুদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.