অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

খেলাধুলার বিকাশে সরকার সবকিছু করবে : প্রধানমন্ত্রী

সত্যের সৈনিক অনলাইন : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে খেলাধুলার বিকাশে যা যা প্রয়োজন সবকিছু করবে বলে আশ্বাস দিয়ে বলেছেন, খেলাধুলা ও সংস্কৃতি মানুষকে নিজের দেশকে আন্তর্জাতিকভাবে তুলে ধরার সুযোগ করে দেয়। এছাড়া ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষ শৃঙ্খলা শিখে এবং আত্মবিশ্বাসী হয়।’

আরও বলেন, মানুষ খেলাধুলা ও সংস্কৃতি থেকে সুন্দরভাবে জীবনযাপন করতে শিখে। এটি মনে রেখে আমরা দেশে খেলাধুলা ও সংস্কৃতির আরো বিকাশে গুরুত্ব দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী গতকাল সন্ধ্যায় গণভবনে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বের ‘এফ’ গ্রুপের খেলায় গ্রুপ চ্যাম্পিয়ান হওয়ায় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবল দলের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের দেয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশ এক সময় খেলাধুলায় পিছিয়ে ছিল। এক্ষেত্রে অনেক বাধা ছিল। কিন্তু আল্লাহর রহমতে সেসব বাধা দূর হয়েছে। আমরা সেসব বাধাবিপত্তি অতিক্রম করে এগিয়ে যাচ্ছি এবং এ অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।’

খেলাধুলাও সংস্কৃতির প্রতি তাঁর পরিবারের সংশ্লিষ্টতা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর দাদা ও বাবা ফুটবল খেলতেন। তিনি বলেন, ‘আমার পরিবারের সকল সদস্য খেলাধুলার সাথে জড়িত ছিল। আমার বড়ভাই শেখ কামাল ছিলেন আবাহনী ক্রীড়া চক্রের প্রতিষ্ঠাতা।’

প্রধানমন্ত্রী এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবল দলের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের অভিনন্দন জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় এবং বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বিএফএফ) সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শিদী এমপি উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দলের সদস্যদের কিছু উপহার দেন। কাজী সালাহউদ্দিন ও বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন মারিয়া মান্দা প্রধানমন্ত্রীকে দু’টি ফুটবল উপহার দেন।

১২ অক্টোবর ২০১৮/সত্যের সৈনিক/ টিআর

Leave A Reply

Your email address will not be published.