অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

‘অ্যানাবেল কামস হোম’ দেখতে গিয়ে সিনেমা হলেই একজনের মৃত্যু

সত্যের সৈনিক অনলাইনঃ সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ দেখতে গিয়ে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। ঘটনাটি ঘটেছে থাইল্যান্ডে। সিনেমা হলে ছবি দেখতে দেখতেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। জানা গেছে, বার্নার্ড চ্যানিং নামে বছর ৭৭ বছরের ওই ব্যক্তি ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন থাইল্যান্ডে।

হঠাৎই তার খেয়াল হয় ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ দেখবেন। তখন হয়ত তিনি ভাবতেও পারেননি এটাই তার দেখা শেষ ছবি হবে।
সিনেমা হলে ওই ব্যক্তির পাশে বসা ছবিটি দেখছিলেন এমন একজন মহিলার বক্তব্য অনুযায়ী, তিনি জানতেও পারেননি তার পাশের সিটের ভদ্রলোক প্রাণ হারিয়েছেন।

ছবির শেষে যখন হলের আলো জ্বলে ওঠে তখন তিনিই প্রথম বিষয়টি লক্ষ্য করেন। এরপর তিনি জরুরী বিভাগে খবর দিলে তারা ওই ব্যক্তির দেহ ঢেকে দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেন। তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে জানা যায় ছবি দেখতে দেখতেই মৃত্যু হয়েছে ওই ব্যক্তির।
অপর একজন প্রত্যক্ষদর্শী বক্তব্য, “হলের প্রবেশদ্বারের কাছে কিছু লোক কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। তারা ওই একই হলে ছিলেন যেখানে ওই ব্যক্তি মারা যান। ওরা হতচকিত হয়ে গেছেন এইরকম একটা ঘটনায়। কিছু লোক ওই ব্যক্তির কাছেই বসেছিলেন। কী হচ্ছে তা দেখার জন্য কাউকে অনুমতি দেননি হলের কর্মচারীরা। আমাদের ছবিও তুলতে দেওয়া হয়নি। ”

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে ‘দ্য কনজিউরিং ২’ দেখতে গিয়ে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের একটি সিনেমা হলে মৃত্যু হয়েছিল ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির। পরে জানা যায় হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে তিনি মারা যান। প্রসঙ্গত, ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ দ্য কনজিউরিং ইউনিভার্সের ষষ্ঠ ছবি। ২০১৭ সালে ‘অ্যানাবেল: ক্রিয়েশন’র পর অ্যানাবেল সিরিজের এটি তৃতীয় ছবি।

১০ জুলাই ২০১৯ / সত্যের সৈনিক/ ম.ম

Leave A Reply

Your email address will not be published.