অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

ট্রাফিকের ভুমিকায় মন্ত্রী

সত্যের সৈনিক অনলাইন : ঢাকার রাস্তায় ট্রাফিকের ভূমিকায় ফের নেমেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি ট্র্যাফিক পুলিশের মতোই রাস্তায় দাঁড়িয়ে গাড়ির লাইসেন্স ও কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করলেন।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুরান ঢাকার কয়েকটি এলাকায় তিনি হঠাৎ করে অভিযানে নামেন। মন্ত্রী এসময় চলাচলকারী পরিবহনগুলোর কাগজপত্র দেখেন এবং যাত্রীদের কাছে বিভিন্ন সমস্যার বিষয়ে খোঁজখবর নেন। তাদের অভিযোগ শুনেন এবং সময়পযোগী ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।

এসময় ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার গাড়িও আটকে দিয়ে কাগজপত্র দেখেন। মন্ত্রী গতিসম্পন্ন সড়কে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা যেন না চলে, এজন্য ট্র্যাফিক বিভাগের লোকদের নির্দেশ দেন।

ট্র্যাফিক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, গাড়ির ফিটনেস, উল্টোপথে গাড়ি চালানো, গাড়িতে হাইড্রোলিক হর্ন, হুটার ও বিকন লাইট ব্যবহার এবং মাইক্রোবাসে কালো গ্লাস ব্যবহার করার জন্য মামলা করা হয়। এছাড়াও, এ সময় ট্র্যাফিক নিয়ম ভঙ্গের কারণে গাড়ি চালকের বিরুদ্ধে ২১৫৩টি মামলা করা হয়। ডিএমপির ট্র্যাফিক বিভাগ পরিচালিত এই ‘ট্র্যাফিক সপ্তাহ’আগামী ১১ আগস্ট পর্যন্ত চলবে

গত ২৯ জুলাই দুপুরে বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম রাজিব ও একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মীমকে হত্যার ঘটনায় শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন। সরকারের কাছে তারা ৯ দফা দাবিও তুলে ধরেন। শিক্ষার্থীদের দাবির বিষয় আমলে নিয়ে সরকার সড়কে শৃঙ্খলা আনার চেষ্টা চালাচ্ছে। ফলশ্রুতিতে ট্র্যাফিক সপ্তাহ’র সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা মহনগর পুলিশ।

১০ আগস্ট ২০১৮/সত্যের সৈনিক/মো: জহিরুল ইসলাম খান

Leave A Reply

Your email address will not be published.