অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

আমার “মা” -মোঃ জহিরুল ইসলাম (জহির)

“মা” (বাবার জীবনে)
উচ্ছৃঙ্খল জীবনকে সুশৃঙ্খলতা দানের
এক সফল কারূক।
“মা”
শত বিপর্যয় লগ্নে পাশে থেকে প্রেরণা যুগানোর এক ভরসার প্রতীক।
“মা”
পথচলায় সুখ-দুঃখের এক উত্তম ভাগীদার।
“মা”
সারাদিনের ক্লান্তি শেষে শীতল ছায়াদানকারী
এক বৃহদাকার বটবৃক্ষ।

“মা” (আমার জীবনে)
দুঃখগুলোকে আপন করে নিয়ে সদা
মুখে হাস্যজ্জ্বল রেখা প্রদানকারী।
“মা”
সুপথ বা কুপথের চিত্র বাতলে দিয়ে
নৈতিক শিক্ষায় উপদিষ্টকারী।
“মা”
আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলায়
এক সফল নির্মাতা।
“মা”
খুব সহজে স্বর্গীয় সুখ লাভের
এক সঠিক ও সর্বোত্তম পন্থা।
“মা”
ঘরোয়া চিকিৎসার মাধ্যমে দুর্বল দেহকে সুস্থ-সবল রাখার এক শ্রেষ্ঠ চিকিৎসক।
“মা”
ত্রুটিগুলোকে ঢেকে অপরের প্রহার বা গঞ্জনা থেকে বাঁচানোর এক শ্রেষ্ঠ নাট্যকার।
“মা”
পৃথিবীতে স্রষ্টার দেয়া শ্রেষ্ঠ উপহার।
“মায়ের আঁচল”
দেহে শীতল পরশ যুগান্তকারী
শ্রেষ্ঠ সুখকর স্থান,
যেখানে মাথা নোয়ালে সমস্ত হতাশা,অবসাদ নিমিষেই হয় ম্লান।

“মা” (পরিবার জীবনে)
অগোছালো পরিবেশকে পরিপাটি দানে
এক দক্ষ গৃহিণী।
“মা”
শত দুর্যোগ-প্লাবন,বিপত্তি-বিঘ্নয়ে পরিবারকে আগলে রাখার এক শক্ত খুঁটি।
“মা”
পরিবারের সকল সদস্যকে একমুঠিতে
আবদ্ধ রাখার প্রধান নির্ভরতা।

প্রকাশকালঃ ০১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
০৫ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ/সত্যের সৈনিক/ সুইটি

Leave A Reply

Your email address will not be published.