অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

আমিই কবিতা -১ – এবিএম সাহাব উদ্দিন

প্রায়শ:ই ভাবি, আমার কবিতা আর আমি;
কে কার অনুগামী?
হয়ত আমিই কবিতা, অথবা কবিতাই আমি
বা আমার আমিই কবিতা,
সমার্থক কবিতা আর আমি!
কখনো আমি জন্মের মত প্রসব বেদনা,
তখন আমার কবিতা স্বগর্বে মাথা তুলে অস্তিত্ব ঘোষনা করে
কখনোবা কবিতারা সৎপুত্রের মত অযত্নে অবহেলায় মৃতপ্রায়
ডোমঘরে খুঁজে পায় অর্বাচিন এ জন্মদাতাকে ।

আমি কবিতার গান গাই, কবিতার কথা বলি, কবিতায় চলি পথ,
ভালোবাসি কবিতাকে, বেঁচে থাকি যুগপৎ
কবিতার সাথে ।
কখনো ভালবাসি নদী; নদীর মত কথা বলি,
আমি বহতা নদী,
ক্রমশ: ডুবে যেতে থাকি তার অথই নীল জলে,
এ সময় জলকন্যার মত নিজেকে ভারি জলজ মনে হয়,
কখনো ঝর ঝর ঝরে পড়ি জলপ্রপাতের মত,
আমি যেন তার অনন্ত কথকতা।

আমার কবিতা উদার নীলাম্বরের অন্তহীন সুনীল পটভূমি, আপামর জনতার সহজিয়া কথা।
আমার কবিতা ঘরে ঘরে, অনুসঙ্গে অনুভবে,
‘আমি তোমাদেরই লোক’।
আমার সৃজিত রঙ্গে রাঙ্গানো এ ভূবনে
তুমি জ্যোস্নাস্নাত মোহময় রাত;
স্নিগ্ধ মনোহর।

আমার কবিতা হেটে যায় নির্ভীক;
একা, তমসাবৃত রাতে; পৃথিবীর
কক্ষপথে, গ্রহ থেকে গ্রহান্তরে; চন্দ্র সূর্য্য রূপে।
কখনো ছড়িয়ে পড়ে মায়াময় প্রকৃতিতে,
তার বিশাল ক্যানভাসে আমার কবিতা সৃষ্টিশীল ছবি
এঁকে চলে অনায়াসে;
আমি আজন্ম ঋণী এই প্রিয় প্রকৃতির কাছে।

মাটির মমতা যেখানে অপাত্য স্নেহে লালন করে সৃষ্টিকুল
আমার কবিতা তার স্বরূপে অনন্য উপহার;
সে আমার মা, আমার তুলনাহীনা মা;
যে তার নীল কষ্টের প্রহর গুণে গুনে অসীম যত্নে
তীলে তীলে আমাকে বৃদ্ধি করেছে তার
জন্মজঠরে,
প্রসব করেছে এক অনিন্দ্যক্ষণে
উপমাবিহীন তীব্র বেদনার অবিস্মরণীয় স্বাদ আস্বাদনে,
আমার কবিতা তাঁর সেই প্রসবব্যথাতুর
নব প্রজন্ম; প্রতিদান যাচেনা কারো কাছে।

নিঃস্বার্থ নির্মল আনন্দ আমার প্রতিটি কবিতা;
কবিতা আমার নব প্রজন্মের অনন্য প্রসব বেদনা।
খুনে রাজনীতি পৃথিবীর যেখানেই ঝরাক মানুষ
আর মানবতার রক্তবন্যা, আমার কবিতা তার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদে স্বোচ্চার জ্বলন্ত হাবিয়া দোজখ।

কবিতা করেনা ক্ষমতার রাজনীতি, দূর্নীতি, আত্মসাৎ
কবিতা কেবলই সত্য সুন্দর;
সে অনন্ত শান্তির শুভ্র কবুতর।

১৮/৫/২০১৯/ সত্যের সৈনিক/ শামীমা নাসরীন

Leave A Reply

Your email address will not be published.