অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

কবিতা- এ আর আলম

তোমাকে লিখতে গিয়ে
কতশত কাগজের পৃষ্ঠায়
কত কলমের বসন্ত নিভেছে
তবু খোরাক মিটলো না
তোমাকে লেখা শেষ হলো না।

তোমাকে লিখবো ভেবে
জীবনের কত বায়োস্কুপ
নিস্তব্ধতায় লুটে গেছে
আঁধারের মিলন গুছিয়ে
চেয়ে দেখেছি কেবলই ঝড়
শুধুই হতাশার নিছক আলিঙ্গন।

তোমাকে লিখতে বসে
কত কত রাত কেঁদেছে
স্রোতে বয়ে চলা জল
গড়িয়ে পড়েছে চোখের কোনে!
গহীন থেকে গহীনে ছুটেছি
অজস্র বেদনার শব্দ সন্ধ্যানে।

তোমাকে লিখবো সাধনায়
জনপদের উল্লাস ছেড়েছি
রঙ্গীন উঠোনের ক্ষমতা লোভে
কখনো মিছিলে চেঁচাতে
কোনদিন কোন দলে ভিড়িনি
আমি সস্তা হতে সহ্য করেছি।

মঞ্চে দাড়িয়ে শ্লোগান দিয়ে
জনতার ভোট কামনা করিনি
বিলাসিতার আয়োজনে নষ্টের বাজারে
আরাম খরিদ করতেও যাইনি!
শুধু তোমাকে লিখবো ভেবে
পুরুনো বৃক্ষতলে আনমনা থেকেছি।

তোমাকে লেখা হলো না আজও
কবিতার গহীনে রয়ে গেলো বাসনা
ক্ষুধার্ত কবি’র কলমে অস্বস্তি
জীবনের কাছে এত হেরেও
আজও মনের জ্বালা মিটিয়ে
শুধু তোমাকে লেখা হয়নি কিছুই।

কবিতা,
তুমি কি নেশা ধরালে মনে?
তোমার ঘোরে মাতাল হয়েও
আজও পুরুপুরি মাতাল হইনি
কবি’র নিয়মে কলম খচিয়ে
জগতের সত্য বাঁচাতে পারিনি
সভ্যতার আত্মঘাতি লিখেই গেলাম
এর কারণ লিখতে গিয়ে থেমে গিয়েছি।

কবিতা,
তুমি সত্যের জয়োগান হও
জগতের সত্য প্রকাশে আমৃত
কলমের ডগায় জীবন বিলিয়ে
কবি’র নিরাপত্তা হয়ে যাও!
তবেই কবি লিখবে সে কবিতা
যে কবিতা জুড়ে থাকবে সত্য!
এবং সত্যতা।

১২ জুলাই ২০১৮/সত্যের সৈনিক/ হালিমা খাতুন

Leave A Reply

Your email address will not be published.