অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

হৃদয়ের বাসনা-সৈয়দ মিজানুর রহমান

তোমাকে দেখলে বুক দুরু দুরু করে
তোমাকে দেখলে বুক কাঁপে
তোমাকে দেখলে বুক ধড়ফড় করে
তোমার নয়নাভিরাম আঁখি পানে
আঁখি মণিতে মণি রেখে স্থির করলেই
স্মৃতির খাতা যায় খুলে ।
যেখানে স্মৃতির স্থিরচিত্র চলমান চিত্ররের সমাহার
একটির পর একটি করে হৃদয় আয়নায় ভেসে চলে
মিষ্টি মধু মান-অভিমানের দৃশ্য
যা অনুভবে এনে দেয় সকালের মিষ্টি রদ্দুর
আবার কখন ভিজিয়ে দিয়ে যায় রিমঝিম বৃষ্টি ।
কখনও শ্রাবনের ধারায় হাসি মুখে অন্তরচক্ষু কাঁদিয়ে
তোমায় দেখতে দেখতে
মন আমার আদুরে হয়ে ওঠে
আদর দেওয়ার ছলে ।
তোমায় দেখতে দেখতে ভালবাসার মায়ায়
কেঁপে কেঁপে ওঠে হৃদয় আমার জ্বরে ।
এখন বৃষ্টি হচ্ছে
তোমার উদাসীনতায় কাব্যিক হয়ে উঠছি
এসো না বারান্দায়
গ্রীল ধরে পাশাপাশি দাঁড়িয়ে বৃষ্টির মনোরম দৃশ্য দেখি,
হাল্কা দমকা হাওয়ার সাথে মন্ত্রময় বৃষ্টি এসে আমাদের ভিজিয়ে দেয়;
এই তুমি ওখানটায় ইজি চেয়ারে বসনা
আমি তোমার পাশে বসে
তোমার বুকে মাথা রেখে বৃষ্টি ভেজার আদ্রতায়
তোমার সাথে মিশে বৃষ্টি অনুভব করি ।
তুমি যদি গুনগুন করে গাও
ঝরো ঝরে বরিসে বারিধারা
পাগল করে দিতে পার মাথায় হাত বুলিয়ে সেই সাথে
ভেসে যাব আমি তোমার প্রেমের বরষণে ।
ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি বইছে শীতল হাওয়ায়
আসবে কি তুমি ?

১২ জুলাই ২০১৮/সত্যের সৈনিক/ হালিমা খাতুন

Leave A Reply

Your email address will not be published.