অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

চট্টগ্রামে দুই কিশোরীকে গণধর্ষণ,গ্রেফতার ৬

সত্যের সৈনিক অনলাইনঃ চাকুরী খুঁজতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে দুই কিশোরী।চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার স্টেশন রোড় এলাকার জলসা মার্কেটের ছাদে নিয়ে তাদের গণধর্ষণ করেছে ৮ নরপশু। গতকাল রবিবার রাতে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মো. ফারুক (২৭), আব্দুল আউয়াল ওরফে ডালিম (৩০), মো. কবির (২৭), জাহাঙ্গীর আলম (২৪), বাবলু (২৮) এবং সেলিম (৩৫) নামে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে।

জানা যায়, জলসা মার্কেটের ৫ম তলায় একটি বোরকার দোকানে চাকুরী দেয়ার কথা বলে ১৬ ও ১৭ বছর বয়সী দুই কিশোরীকে মার্কেটে নিয়ে যায় দোকান মালিক রাশেদ।সন্ধ্যায় চাকুরীর বিষয়ে কথা বলে বাসায় চলে যাওয়ার সময় দোকানের দুই কর্মচারী মোবাইল ফোন চুরির জন্য তাদের সন্দেহ করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের নামে আটকে রাখে।রাতে শালিশের কথা বলে দুই কিশোরীকে মার্কেটের নবম তলার ছাদে নিয়ে যায়।সেখানে অভিযুক্ত দোকান কর্মচারীরা মিলে তাদেরেকে জোরপূর্বক গণধর্ষণ করে।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, চাকুরি খুঁজতে গিয়েছিল রীতা ও মিতা (ছদ্মনাম) নামে দুই মেয়ে। কিন্তু সেখানে তাদের দেওয়া হয় চুরির অপবাদ।পরে জিজ্ঞাসাবাদের নামে তাদের নেওয়া হয় জলসা মার্কেটের ছাদে। সেখানে তাদের পালাক্রমে ধর্ষণ করে আট নরপশু। ভিকটিমদের স্বজনরা দীর্ঘ সময় খোঁজাখুঁজির পর তাদের গুরুতর আহতাবস্থায় পুলিশের সহায়তায় চমেক হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করায়।

ঘটনার সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথেই ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়। পলাতক বাকি দুইজনকে গ্রেফতারেও অভিযান চলছে। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা এবং অভিযুক্তদের সম্পৃক্ততার প্রমাণ মিলেছে।

এ ঘটনায় এক কিশোরীর মা বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় মামলা করেছে বলে পুলিশ জানায়।

২৪ সেপ্টেম্বর/সত্যের সৈনিক/এমএএআর

Leave A Reply

Your email address will not be published.